প্যারিসের ক্যাটাকম্বাস (The Catacombs of Paris)

প্যারিসের ক্যাটাকম্বাস The Catacombs of Paris
প্যারিসের ক্যাটাকম্বাস The Catacombs of Paris

প্যারিস, খুব কম মানুষই জানে এই সুন্দর ও রোমান্টিকময় শহরের নিচে পৃথিবীর সবচেয়ে বড় কবরস্থান ক্যাটাকম্বস অবস্থিত। ক্যাটাকম্বসে প্রায় ৬০ লাখের বেশি মানুষের অবশেষ রাখা হয়েছে।

ক্যাটাকম্বসকে ১৭-১৮ শতাব্দীর দিকে ঢালিয়ে সাজানো হয়েছে। এটা ওই সময় ছিল যখন প্যারিসের সব কবরস্থান মানব অবশেষে পরিপূর্ণ হয়েছিল। নতুন করে কবর বানানোর জন্য কোনো জায়গা ছিল না। এই সমস্যা বিশাল বড় আকার ধারণ করেছিল। এই সমস্যা সমাধানের জন্য আধিকারিকরা একটি উপায় বের করলো। তারা মৃত মানুষের সমস্ত অবশেষকে বাইরে একটি বড় ক্যানেল করা গর্তের মধ্য ঢেলে দিলো, এই সময় প্যারিস শহরের বাইরে ছিল। ঐতিহাসিক গবেষক বলেন সেই সময় এই কাজটি সম্পর্ণ করতে প্রায় ১২ বছর সময় লেগেছে।

প্রথমে এই কংকালগুলিকে স্তূপ রূপে ফেলা হয়েছিল পরবর্তীতে এটিকে দেওয়ালের ধার দিয়ে ও থমের সাথে ভালো করে সাজিয়ে রাখা হয়। তারপর এটি পর্যটকের জন্য ১৮১৪ খ্রিস্টাব্দে খুলে দেওয়া হয়।

যদি আপনার কালো অন্ধকারময় নর কঙ্কালের মধ্য যাওয়ার সাহস হয়, আপনিও ক্যাটাকম্বসের টিকেট অনলাইন এ বুকিং দিতে পারেন। এখানে আসতে হলে আপনাকে পারিস থেকে মেট্রো করে ডেলফোর্ট স্টেশনে যেতে হবে। যেখানে ক্যাটাকম্বসে যাবার প্রবেশ দরজা আছে। এই প্রবেশ দরজায় ফ্রান্সের বড় বড় অক্ষরে লেখা আছে “এখানে থামো, এখন থেকে মৃত মানুষের সাম্রাজ্য শুরু হয়”। যদি আপনি ক্যাটাকম্বসে প্রথমবার যান তবে গাইড অবশ্যই নিবেন কারণ কাটাকম্বস প্যারিস শহরের নিচে অবস্থিত ৩০০ কিলোমিটারের চেয়ে বেশি বড় সুড়ঙ্গের এক সামান্য অংশ মাত্র। একটি ভুল বাক এবং আপনি সারাজীবনের জন্য এই ভুলভুলাইয়াতে আটক পড়বেন। ১৭৯৩ খ্রিস্টাব্দে সিলভার এটলাস নাম এক ব্যাক্তি ক্যাটাকম্বসে হারিয়ে গিয়েছিলেন আর তার লাশ ১১ বছর পর পাওয়া যায়। দুর্ভাগ্যের বিষয় এটাই যে যেখানে ব্যাক্তিটির লাশ পাওয়া গিয়েছে তার মোড়েই ছিল বাইরে যাবার রাস্তা।

ক্যাটাকম্বস বিশাল সুড়ঙ্গের এক ছোট অংশ মাত্র যা কাজ শেষ হবার পর এভাবেই ফেলে রাখা হয়। এই সুড়ঙ্গের বেশিরভাগ অংশ নকশাতে উল্লেখ করা নাই। এই জন্য ফ্রান্স সরকার শুধু সামান্য অংশ বাদে বাকি অংশগুলিতে প্রবেশ করা নিষিদ্ধ করেছে। নিয়ম ভঙ্গকারীকে জেল ও মোটা অংকের টাকা জরিমানা দিতে হয়।