মুড সুইং কাদের হয় এবং তাদের সাথে কেমন ব্যবহার করা উচিত?

মুড সুইং mood swings

মুড সুইং

ছেলে বা মেয়ে, নারী কিংবা পুরুষ, সকলেরই হয় এটি। এবিষয় নিয়ে অনেক কিছুই এখনও অস্পষ্ট। তবে, হরমোনের ব্যাপক পরিবর্তনের সাথে মুড সুইং-এর সম্পর্ক লক্ষ করা যায়। এজন্য পুরুষের তুলনায় নারীর এবং প্রাপ্তবয়সের চেয়ে বয়ঃসন্ধি-কালে এটি বেশি হয়ে থাকে। হরমোনাল ইফেক্ট হলে কমবেশি ছেলেদেরও মুড সুইং হয়।

তাদের সাথে কেমন ব্যবহার করব?

মুড সুইং-এর প্রভাবে একজন মানুষ আত্মহত্যা পর্যন্ত করতে পারে। তাই, কারো মুড সুইং হচ্ছে মনে হলে তার সাথে সাবধনতার সাথে কোমল ব্যবহার করতে হবে। এছাড়াও যা যা করা উচিত :

  1. তার কথা শুনুন।
  2. তাকে ভালোবাসা অনুভব করান।
  3. মুখের ওপর ‘না’ বলা পরিহার করুন।
  4. বিনোদনের ব্যবস্থা করুন।
  5. পরিস্থিতি জটিল হলে বিশেষজ্ঞের শরণাপন্ন হোন।

নিজের মুড সুইং হলে কী করব?

  1. রুটিন ঠিক রাখুন।
  2. ব্যায়াম করার অভ্যাস করুন। এতে মানসিক চাপ কমবে।
  3. প্রতিদিন ৭ থেকে ৮ ঘন্টা ঘুমানোর অভ্যাস করুন।
  4. রাতে আগেভাগে ঘুমান, সকালে আগে জাগুন।
  5. সুষম খাদ্য খাওয়া হচ্ছে কিনা খেয়াল রাখুন।
  6. সম্ভব হলে যোগ ব্যায়াম করুন। এতে মনের প্রশান্তি আসবে।
  7. মানসিক চাপ এড়িয়ে চলুন।
  8. নিজের ভেতর বন্দী না থেকে মন খুলে দিন।
  9. বেশি সমস্যা অনুভব করলে বিশেষজ্ঞের শরণাপন্ন হোন।

মুড সুইং কাটানোর জন্য আপন মানুষ খুব কার্যকর। তাই, আপন মানুষ থাকা গুরুত্বপূর্ণ। মানুষকে ভালোবাসুন।